মাইগ্রেন থেকে মুক্তি পাওয়ার উপায়

বিভিন্ন কারণে মাথাব্যথা হয়ে থাকে। ঠান্ডা সর্দি, চোখের সমস্যা জনিত কারণে অথবা হতে পারে ব্রেন টিউমার। কিন্তু মাথাব্যথা হওয়ার অন্যতম একটি কারণ হলো মাইগ্রেন। মাইগ্রেনের সমস্যা একদিনে দেখা দেয় না। জীবনযাপনের ধরণের উপর অনেকাংশে মাইগ্রেন নির্ভর করে থাকে। কাজেই এ সমস্যা থেকে পরিত্রাণ পেতে হলে লাইফ স্টাইল এ পরিবর্তন আনা জরুরী।

মাইগ্রেনের ব্যথা খুবই কষ্টকর এক কথায় অস্বাভাবিক। গবেষণায় দেখা গেছে, মাইগ্রেনের রোগী দিনের পর দিন বেড়েই চলেছে। এর কারণ কি হতে পারে? চলুন তাহলে মাইগ্রেন কেন হয়? এর থেকে মুক্তি পাওয়ার উপায় কি? এছাড়া মাইগ্রেন সম্পর্কিত আরো বেশ কিছু তথ্য সম্পর্কে একটু জেনে নেয়া যাক।

প্রিয় পাঠক বৃন্দ, আমাদের আজকের আলোচনায় থাকছে মাইগ্রেন থেকে মুক্তি পাওয়ার উপায়। যারা এই সমস্যা থেকে প্রতিকারের চেষ্টা করছে তারা একদম ঠিক জায়গায় এসেছেন। বিস্তারিত জানতে হলে শেষ পর্যন্ত সম্পূর্ণ আর্টিকেলটি আপনাকে পড়তে হবে।

পেজ সূচিপত্রঃ 

মাইগ্রেন কি?

মাইগ্রেন থেকে মুক্তি পাওয়ার উপায় সম্পর্কে জানার আগে অবশ্যই জানা দরকার আসলে মাইগ্রেন কি? মাইগ্রেন অর্থ মাথাব্যথা। মাইগ্রেনের ব্যথা মাথার একদিক থেকে শুরু হয়। অনেক ক্ষেত্রে মাথার অর্ধেক প্রচন্ড রকম ব্যথা হয় আবার দেখা যায় বারবার একই জায়গায় তীব্র ব্যথা থাকে। মূলত অর্ধেক মাথাব্যথা থেকে শুরু মাইগ্রেন। গ্রিক শব্দ থেকে মাইগ্রেন শব্দটি এসেছে।

মাইগ্রেনের সমস্যা হওয়ার কারণ কি?

বর্তমানের খুবই আলোচিত সমস্যা হলো মাইগ্রেন। প্রতিনিয়ত বেড়ে চলা এই সমস্যাটি কি কারণে হয়ে থাকে চলুন একটু জেনে নেয়া যাক। মাইগ্রেনের সমস্যা হওয়ার কারণ কি এ বিষয়ে জেনে এর পরবর্তীতে মাইগ্রেন থেকে মুক্তি পাওয়ার উপায় সম্পর্কে জানতে হবে।
মাইগ্রেনের সমস্যার নির্দিষ্ট কোন কারণ খুঁজে পাওয়া যায়নি বলে জানা যায়। বিভিন্ন কারণে এ সমস্যাটি হয়ে থাকে। যেমন-
  • অতিরিক্ত মানসিক চাপের কারণে ।
  • পর্যাপ্ত ঘুম না হওয়া।
  • অতিরিক্ত শারীরিক চাপ অর্থাৎ পরিশ্রম করা।
  • খাদ্যাভ্যাসের অনিয়ম।
  • অতিরিক্ত কফি চা পান করা।
  • আবহাওয়ার পরিবর্তনের কারণে।
  • হরমোনাল ইম ব্যালেন্স।
  • অতিরিক্ত শব্দ শ্রবণের জন্য।
  • মাত্রাতিরিক্ত আলোয় থাকার কারণে।
  • জেনেটিক ভাবে ।
উপরোক্ত কারণগুলো হতে পারে মাইগ্রেনের সমস্যা হওয়ার জন্য দায়ী।

মাইগ্রেনের লক্ষণ গুলো কি কি?

সব মাথা ব্যথায় মাইগ্রেন নয়। মাইগ্রেনের কিছু উল্লেখযোগ্য উপসর্গ বা লক্ষণ আছে যার দ্বারা বিবেচনা করা যায় যে এটি স্বাভাবিক মাথাব্যথা নয়। মাইগ্রেন থেকে মুক্তি পাওয়ার উপায় আলোচনায় আজ আমরা মাইগ্রেনের লক্ষণ গুলো কি কি সে সম্পর্কে একটু জেনে নেব।
মাইগ্রেনের লক্ষণ গুলো হল-
  1. মাথার এক পাশ থেকে ব্যাথা শুরু হওয়া।
  2. বিষন্নতা।
  3. অমনোযোগ।
  4. বমি বমি ভাব হওয়া।
  5. অতিরিক্ত ঘেমে যাওয়া।
  6. ঠান্ডা বা গরম অনুভূত হওয়া।
  7. পেটে ব্যথা।
  8. মেজাজ খিটখিটে হয়ে যাওয়া।
  9. অস্বাভাবিক মাথাব্যথা যা সহনীয় নয়।
উপরোক্ত লক্ষণগুলো কারো মধ্যে দেখা গেলে বুঝতে হবে যে এটি স্বাভাবিক ব্যথা নয় এবং অবশ্যই যত দ্রুত সম্ভব চিকিৎসকের কাছে যেতে হবে।

মাইগ্রেনের ব্যথা কমানোর উপায় কি?

মাইগ্রেনের ব্যথা একেবারেই কখনো কমে যায় না। যে কোন ব্যথা যেমন আস্তে আস্তে অল্প থেকে বাড়তে থাকে ঠিক তেমনি মাইগ্রেনের ব্যথা বেশ কিছুক্ষন সময় নিয়ে তারপরে স্বাভাবিক পর্যায়ে আসে। অনেকেই প্রশ্ন করে থাকে মাইগ্রেনের ব্যথা কমানোর উপায় কি? তাদের উদ্দেশ্যে বলছি মাইগ্রেনের ব্যথা হলে নিচের টিপস গুলো ফলো করতে পারেন। আশা করা যায় উপকারে আসবে।
  1. মাইগ্রেনের ব্যথা হলে আদা কুচি করে কেটে চিবোতে পারেন। এটি ব্যথা কমাতে সহায়ক।
  2. ঠান্ডা পানি পান করবেন। ব্যথার উপশম কমতে থাকবে।
  3. মাথায় অয়েল মেসেজ করুন আরাম পাবেন।
  4. ব্যথা থাকা অবস্থায় অতিরিক্ত আলোতে থাকবেন না।
  5. চিকিৎসকের দেয়া ঔষধ সেবন করুন।
  6. ঘুমানোর চেষ্টা করুন। ঘুমালে ব্যথা ধীরে ধীরে কমে যাবে।

মাইগ্রেনের ব্যথা কমাতে কোন খাবার গুলি খাব?

অতিরিক্ত ব্যস্ততার কারণে এবং যান্ত্রিক জীবন যাপন সবকিছু মিলিয়ে সারা বিশ্বে মাইগ্রেনের শিকার এখন লক্ষ লক্ষ মানুষ। অগোছালো জীবন যাপন এবং অনিয়মিত খাদ্যাভ্যাসের কারণে এই সমস্যার সম্মুখীন হতে হচ্ছে অসংখ্য মানুষের। তাই আমাদেরকে জানতে হবে মাইগ্রেনের ব্যথা কমাতে কোন খাবারগুলি খাব। মাইগ্রেন থেকে মুক্তি পাওয়ার উপায় গুলোর মধ্যে এটি অন্যতম। কারণ খাওয়ার অনিয়মের জন্যই এই সমস্যায় পড়তে হয়। মাইগ্রেনের ব্যথা কমাতে যে খাবারগুলি খাব তা নিচে উল্লেখ করা হলো-
  • পানিঃ মাইগ্রেনের ব্যথা কমাতে প্রচুর পরিমাণে পানি পান করতে হবে। কারণ ডিহাইড্রেশন বা পানি শূন্যতার কারণে মাইগ্রেন দেখা দেয়।
  • শাকসবজিঃ বিভিন্ন ধরনের সবুজ শাকসবজি বিশেষ করে যেগুলোতে ম্যাগনেসিয়াম এর পরিমাণ বেশি রয়েছে সেগুলো খেতে হবে। ম্যাগনেসিয়াম মাথা ব্যথা কমাতে সহায়ক।
  • ডার্ক চকলেটঃ চকলেট যে সব সময় খারাপ এমনটি নয়। ডার্ক চকলেটে এমন কিছু উপাদান রয়েছে যেগুলো ছোট এবং বড় উভয়ের জন্য ভালো এবং গুণাগুণ সম্পন্ন। ডার্ক চকলেট মাইগ্রেনের ব্যথা কমাতে সাহায্য করে।
  • লবঙ্গঃ মাথাব্যথা হোক বা গলা ব্যথা উভয়ের ক্ষেত্রে লবঙ্গ খুবই কার্যকর। লবঙ্গ চিবালে মাথা ব্যথা ধীরে ধীরে হ্রাস পায়।
  • বাদামঃ বাদাম মানসিক স্বাস্থ্যকে উন্নত করে। তাই প্রচুর পরিমাণে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট যুক্ত বাদাম খেলে মাইগ্রেন থেকে মুক্তি পাওয়া সম্ভব।
  • লেবুর রসঃ ভিটামিন সি যুক্ত লেবুর রস রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাকে বৃদ্ধি করে এবং মাথাব্যথা কমাতে সাহায্য করে থাকে।

মাইগ্রেন থাকলে যে বিষয়ে সতর্ক থাকতে হবে

যাদের মাইগ্রেনের সমস্যা রয়েছে তাদেরকে বেশ কিছু নিয়ম মেনে জীবন যাপন করা উচিত। কারন মাইগ্রেনের সমস্যা হওয়ার অন্যতম কারণ হলো অগোছালো জীবন যাপন। মাইগ্রেন থাকলে যে বিষয়ে সতর্ক থাকতে হবে সেগুলো হল-
  • ল্যাপটপ বা মোবাইল ফোন দীর্ঘ সময় না ব্যবহার করা।
  • অতিরিক্ত শব্দ থেকে দূরে থাকা।
  • অ্যালকোহল জাতীয় খাবার ত্যাগ করা।
  • অতিরিক্ত ক্যাফেইন জাতীয় খাবার না খাওয়া।
  • পর্যাপ্ত পরিমাণে নিয়মিত ঘুমানো।

মাইগ্রেন থেকে মুক্তি পাওয়ার উপায়-শেষ কথা

গবেষণা করে দেখা গেছে পুরুষের চেয়ে মহিলাদের মাইগ্রেনের সমস্যা বেশি হয়। দিন দিন এই সমস্যাটি আরো ছড়িয়ে পড়ছে যা শিকার হচ্ছে বিভিন্ন বয়সের মানুষ। মাইগ্রেন এমন কোন সমস্যা নয় যেটি নির্দিষ্ট কোন চিকিৎসার মাধ্যমে চিরতরে ভালো হয়ে যায়। চিকিৎসা বিজ্ঞানে এখন পর্যন্ত মাইগ্রেন থেকে মুক্তি পাওয়ার উপায় খুঁজে পাওয়া যায়নি। কিন্তু কিছু নিয়ম মেনে চললে এর থেকে কিছুটা মুক্তি পাওয়া সম্ভব বা নিয়ন্ত্রণে আনা সম্ভব। তাই আমরা ভুক্তভোগীরা বিশেষ সতর্কতা অবলম্বন করে এই সমস্যার মোকাবেলা করব।
মাইগ্রেন থেকে মুক্তি পাওয়ার উপায় আলোচনায় আজকে আমরা আপনাদের গুরুত্বপূর্ণ কিছু তথ্য দেওয়ার চেষ্টা করেছি। আশা করছি আপনারা কিছুটা হলেও সহযোগিতা লাভ করবেন আমাদের আর্টিকেলটি পড়ার পর। ধৈর্য সহকারে লেখাটি পড়ার জন্য অসংখ্য ধন্যবাদ। ভাল থাকুন, সুস্থ থাকুন।

Next Post Previous Post
No Comment
Add Comment
comment url