বাংলাদেশের প্রথম স্বাধীন জেলা কোনটি

 বাংলাদেশের প্রথম স্বাধীন জেলা কোনটি? এই বিষয়ে আমরা অনেকেই জানিনা। কিন্তু এই ধরনের প্রশ্ন বিভিন্ন সময় আমাদের সামনে চলে আসে। তাই আমাদেরকে বাংলাদেশের প্রথম স্বাধীন জেলা কোনটি? বিষয় সম্পর্কে জেনে থাকা উচিত। আজকের এই আর্টিকেলে বাংলাদেশের প্রথম স্বাধীন জেলা কোনটি? এই বিষয় নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করব।

আপনি যদি বাংলাদেশের প্রথম স্বাধীন জেলা কোনটি? জানতে চান তাহলে সম্পূর্ণ আর্টিকেল মনোযোগ সহকারে পড়ুন। তাহলে চলুন দেরি না করে বাংলাদেশের প্রথম স্বাধীন জেলা কোনটি? তা জেনে নেওয়া যাক।

সূচিপত্রঃ বাংলাদেশের প্রথম স্বাধীন জেলা কোনটি

বাংলাদেশের প্রথম স্বাধীন জেলা কোনটি - বাংলাদেশের দ্বিতীয় স্বাধীন জেলা কোনটি

আমরা জানি যে বাংলাদেশ ১৯৭১ সালের ১৬ই ডিসেম্বর বিজয় অর্জন করে এবং একই বছরের ২৬ শে মার্চ স্বাধীনতা অর্জন করেছিল। এটা শুধু বাংলাদেশের ইতিহাস কিন্তু আমাদের বাংলাদেশ মোট ৬৪ জেলা নিয়ে গঠিত। বাংলাদেশের দ্বিতীয় স্বাধীন জেলা কোনটি? এ বিষয় সম্পর্কে অনেকের কোন ধারণা নেই। আবার স্বাধীনতার যুদ্ধের পরে বাংলাদেশের প্রথম স্বাধীন জেলা কোনটি? এ সম্পর্কে আমাদের জানা নেই।

আরো পড়ুনঃ ১৫ ই আগস্ট জাতীয় শোক দিবস

কিন্তু একজন বাংলাদেশের নাগরিক হিসেবে আমাদেরকে অবশ্যই বাংলাদেশের দ্বিতীয় স্বাধীন জেলা কোনটি এবং বাংলাদেশের প্রথম স্বাধীন জেলা কোনটি? এই সম্পর্কে জ্ঞান থাকা উচিত। বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধে প্রথম শত্রু মুক্ত জেলা অর্থাৎ স্বাধীন জেলা ছিল যশোর।

বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের প্রথম শত্রুমুক্ত জেলা ছিল ঝিনাইদহ। ঝিনাইদহ স্বাধীন হয়েছিল ১৯৭১ সালের ৬ ডিসেম্বর। কিন্তু ঝিনাইদহ তখনও জেলা হয়নি। তৎকালীন যশোর জেলার একটি মহকুমা ছিল। এই জেলা স্বাধীন হওয়ার পরে সম্পূর্ণ যশোর জেলা স্বাধীন হয়েছিল তাই বাংলাদেশের প্রথম স্বাধীন জেলা হলো যশোর।

বাংলাদেশের প্রথম জেলা কোনটি

আমরা অনেকেই বাংলাদেশের প্রথম জেলা কোনটি? এই বিষয় সম্পর্কে জানিনা। বাংলাদেশের সর্বপ্রথম জেলা হল চট্টগ্রাম। ৩ টি পার্বত্য জেলা ও জেলার অন্তর্ভুক্ত ছিল এটি। বাংলাদেশের সব থেকে প্রাচীনতম এবং সর্বপ্রথম জেলা হলো এটি।

আমাদের ছোট্ট বাংলাদেশ ৬৪ টি জেলা নিয়ে গঠিত। এক একটি জেলার একেকটি বৈশিষ্ট্য এবং নিজস্ব ভাষা রয়েছে। কিন্তু আপনি কি জানেন বাংলাদেশের প্রথম জেলা কোনটি? বাংলাদেশের প্রথম জেলা হল চট্টগ্রাম। ১৬৬৬ সালে চট্টগ্রাম জেলা প্রথম যাত্রা শুরু করেছিল।

বাংলাদেশের সর্বশেষ স্বাধীন জেলা কোনটি

আমরা জানি যে বাংলাদেশ এর ইতিহাসে মুক্তিযুদ্ধ খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয়। আমরা অনেকেই এই বিষয় সম্পর্কে কোন ধারণা রাখি না। বাংলাদেশের সর্বশেষ স্বাধীন জেলা কোনটি? কিন্তু একজন বাঙালি হিসেবে আমাদেরকে অবশ্যই বাংলাদেশের ইতিহাসের সাথে জড়িত কিছু গুরুত্বপূর্ণ বিষয় সম্পর্কে জানা উচিত। বাংলাদেশের সর্বশেষ স্বাধীন জেলা কোনটি? তাই জানব।

বাংলাদেশের সর্বশেষ শত্রুমুক্ত জেলা হল রাজবাড়ী জেলা। এই জেলাটি ১৯৭১ সালের ১৮ ডিসেম্বর শত্রুমুক্ত হয়েছিল। কারণ এখানে বিহারী পাকিস্তানি বাহিনী ও রাজাকাররা একসাথে যুদ্ধে অংশ নেয়। তাই ১৬ ডিসেম্বর বাংলাদেশ স্বাধীন হলেও রাজবাড়ি থেকে বিহার ও রাজাকার তখনো আত্মসমর্পণ করেনি কিন্তু পরবর্তীতে ১৮ ডিসেম্বর তারা আত্মসমর্পণ করে রাজবাড়ী জেলা মুক্ত হয়।

বাংলাদেশের প্রথম বিভাগ কোনটি

আমাদের বাংলাদেশ আটটি বিভাগ নিয়ে গঠিত। এই আটটি বিভাগের মধ্যে সর্বপ্রথম অর্থাৎ বাংলাদেশের প্রথম বিভাগ কোনটি? আপনি কি জানেন? না জানলে অবশ্যই আমাদের সাধারণ জ্ঞান এ রূপে বাংলাদেশের প্রথম বিভাগ কোনটি? বিষয়টি সম্পর্কে জানা উচিত। বাংলাদেশের সর্বপ্রথম বিভাগ ছিল তিনটি।

আরো পড়ুনঃ মুখে তালাক দেওয়ার নিয়ম

বাংলাদেশের সর্বপ্রথম তিনটি বিভাগের মধ্যে ছিল ঢাকা-চট্টগ্রাম এবং রাজশাহী। শাসন আমলে তৎকালীন বাংলার প্রদেশে সর্বপ্রথম বর্তমান বাংলাদেশের ভূখণ্ডে এই তিনটি বিভাগ গঠিত হয়েছিল। পরবর্তীতে ঢাকা ও রাজশাহী বিভাগের একাংশ নিয়ে ১৯৬০ সালে গঠিত হয় নতুন বিভাগ খুলনা।

১৯৭১ সালে বাংলাদেশ স্বাধীন হওয়ার পর ১৯৯৩ সাল পর্যন্ত এই চারটি বিভাগ ছিল। পরবর্তীতে খুলনা বিভাগের একাংশ নিয়ে গঠিত হয় বরিশাল বিভাগ এবং ১৯৯৮ সালে চট্টগ্রাম বিভাগকে ভেঙে সিলেট বিভাগ প্রতিষ্ঠা করা হয়। ২০১০ সালের ২৫ জানুয়ারি বৃহত্তর রংপুর আর দিনাজপুর অঞ্চল নিয়ে প্রতিষ্ঠিত হয় রংপুর বিভাগ।

আলোচনা থেকে আমরা জানতে পারলাম যে বাংলাদেশের প্রথম বিভাগ কোনটি? বাংলাদেশের প্রথম বিভাগ হলো তিনটি। ঢাকা-চট্টগ্রাম এবং রাজশাহী পরবর্তীতে এগুলোকে ভেঙ্গে ভেঙ্গে বিভিন্ন বিভাগে নামকরণ করা হয়েছে।

বাংলাদেশের প্রথম ডিজিটাল জেলা কোনটি

বর্তমানে বাংলাদেশ ডিজিটাল বাংলাদেশ হিসেবে পরিচিত। ধীরে ধীরে আরো ডিজিটাল হচ্ছে আমাদের এই ছোট্ট বাংলাদেশ। বাংলাদেশের যেকোনো কাজ এখন অনলাইনে মাধ্যমে করা হয়। পূর্বে যে কাজগুলো করতে ঘন্টার পর ঘন্টা সময় লাগতো কিন্তু বর্তমানে পাঁচ মিনিট এর মধ্যেই করা যায়। সাধারণত তাই বাংলাদেশকে ডিজিটাল বাংলাদেশ বলা হয়।

কিন্তু আমরা অনেকেই বাংলাদেশের প্রথম ডিজিটাল জেলা কোনটি? এ বিষয় সম্পর্কে জানিনা। যদি আপনাকে জিজ্ঞেস করা হয় বাংলাদেশের প্রথম ডিজিটাল জেলা কোনটি? তাহলে আপনি বলতে পারেন বাংলাদেশের প্রথম ডিজিটাল জেলা হিসেবে আনুষ্ঠানিক স্বীকৃতি পায় যশোর জেলা।

২০১২ সালের ২০ ডিসেম্বর বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার যশোর জেলাকে বাংলাদেশের প্রথম ডিজিটাল জেলা হিসেবে ঘোষণা করেন। এবং স্বাধীনতা যুদ্ধের পরে বাংলাদেশের প্রথম শত্রু মুক্ত জেলা ছিল যশোর জেলা। আশা করি বাংলাদেশের প্রথম ডিজিটাল জেলা কোনটি? এ সম্পর্কে জানতে পেরেছেন।

বাংলাদেশের প্রথম স্বাধীন উপজেলা

উপরের আলোচনায় আমরা বাংলাদেশের প্রথম স্বাধীন জেলা কোনটি? এই বিষয় সম্পর্কে জেনেছি। কিন্তু আমাদের অনেকের বাংলাদেশের প্রথম স্বাধীন উপজেলা কোনটি তা জানা নেই। এসব গুলো আমাদের মুক্তিযুদ্ধের সাথে জড়িত। তাই আমাদেরকে বাংলাদেশের প্রথম স্বাধীন উপজেলা কোনটি? সে সম্পর্কে জানতে হবে।

আরো পড়ুনঃ ড্রাইভিং লাইসেন্স করার নিয়ম

বাংলাদেশের ইতিহাসে ১৯৭১ সালের ১৬ই ডিসেম্বর বিজয় অর্জন করে। এই দিনটি বাংলাদেশের মানুষের কাছে খুবই গুরুত্বপূর্ণ এবং সারা জীবন ইতিহাসের পাতায় লেখা থাকবে। কিন্তু সম্পূর্ণ বাংলাদেশ বিজয় অর্জন করার আগে সর্বপ্রথম যশোর জেলা স্বাধীন হয়েছিল। কিন্তু সর্বপ্রথম কোন উপজেলা স্বাধীন হয়েছিল এই সম্পর্কে কোন তথ্য নেই।

বাংলাদেশের প্রথম স্বাধীন জেলা কোনটিঃ শেষ কথা

বাংলাদেশের প্রথম স্বাধীন জেলা কোনটি? বাংলাদেশের প্রথম স্বাধীন উপজেলা, বাংলাদেশের প্রথম ডিজিটাল জেলা কোনটি? বাংলাদেশের প্রথম বিভাগ কোনটি? বাংলাদেশের সর্বশেষ স্বাধীন জেলা কোনটি? বাংলাদেশের প্রথম জেলা কোনটি? বাংলাদেশের দ্বিতীয় স্বাধীন জেলা কোনটি? এ সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়েছে।

প্রিয় বন্ধুরা আশা করি আপনারা উক্ত বিষয়টি সম্পর্কে জানতে পেরেছেন। এতক্ষণ আমাদের সঙ্গে থাকার জন্য অসংখ্য ধন্যবাদ। এরকম গুরুত্বপূর্ণ আর্টিকেল আরো পড়তে নিয়মিত আমাদের ওয়েবসাইট ফলো করুন।১৬৮৩০

Next Post Previous Post
No Comment
Add Comment
comment url