সংসারে অভাব দূর করার দোয়া -সংসারে অভাব দূর করার উপায়

 আপনি কি জানেন সংসারে অভাব দূর করার দোয়া ও সংসারে অভাব দূর করার উপায়? আমাদের অনেকের সংসারে অভাব যেন নিত্যদিনের সঙ্গী। এখান থেকে বের হতে আমরা আজ জানব সংসারে অভাব দূর করার দোয়া। আশা করছি সংসারে অভাব দূর করার দোয়া আর্টিকেলটি মনোযোগ সহকারে পড়বেন।

মহান আল্লাহ আমাদের বিভিন্ন সময় বিভিন্ন রকমের অভাব অনটন, রোগ শোক, বিপদ আবাদ, বালা মুসিবত ইত্যাদি দিয়ে পরীক্ষা করে থাকেন। আমাদের ধৈর্য কম হলে আমরা অধৈর্য হয়ে পড়ি। কিন্তু পক্ষান্তরে ধৈর্য সহকারে আল্লাহর নিয়ম অনুযায়ী দোয়া বা আমল করলে অভাব থেকে অনেকটা বেঁচে থাকতে পারবো।

পোস্ট সূচিপত্র ঃ সংসারে অভাব দূর করার দোয়া - সংসারে অভাব দূর করার উপায়

সংসারে অভাব দূর করার দোয়া  

আমাদের অনেকের সংসারে অভাব লেগেই থাকে। অভাব যেন পিছুই ছাড়েনা। আসুন জেনে নিই সংসারে অভাব দূর করার দোয়া সম্পর্কে। আমরা জানি ধন সম্পদের প্রাচুর্য এবং হালাল সম্পদ আল্লাহর এক বিশেষ নেয়ামত। কিন্তু মাঝে মাঝে আল্লাহ এগুলো না দিয়ে আমাদের পরীক্ষায় ফেলেন। কিন্তু কেউ কেউ দুর্বল ঈমানদার হওয়ার কারনে ধৈর্য হারা হয়ে পড়েন। রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাই সাল্লাম বলেছেন যে ব্যক্তি বেশি বেশি এই দোয়াটি পাঠ করবে তার অভাব দূর হয়ে যাবে।

দোয়াটি হচ্ছে

اللّهُمَّ إنِّي أَعُوذُ بِكَ مِنَ الْفَقْرِ، وَالْقِلَّةِ، وَالذِّلَّةِ، وَأَعُوذُ بِكَ مِنْ أَنْ أَظْلِمَ أو أُظْلَمَ
“আল্লাহুম্মা ইন্নি আউজুবিকা মিনাল ফাকরি, ওয়াল কিল্লাতি, ওয়াজজিল্লাতি, ওয়া আউজুবিকা মিন আন আজলিমা আও উজলিমা।” (আবু দাউদ, হাদিস -১৫৪৪)।
অর্থ ঃ হে আল্লাহ, আমি আপনার কাছে আশ্রয় চাই দারিদ্রতা থেকে। কম দয়া থেকে এবং অসম্মানী থেকে। এবং আমি আপনার কাছে আরো আশ্রয়  চাচ্ছি কাউকে জুলুম করা থেকে অথবা কারো দ্বারা অত্যাচারিত হওয়া থেকে।

এছাড়াও বেশি বেশি ইস্তেগফার পাঠ করলে অভাব দূর হয়। রাসূল (সা) বলেছেন, যে ব্যক্তি নিয়মিত ইস্তেগফার পাঠ করবে (আস্তাগফিরুল্লাহ রাব্বি মিন কুল জাম্বিউ ওয়াতুবু ইলাইহি) আল্লাহ তার সকল সংকট থেকে উত্তরণের পথ বের করে দেবেন, সকল দুশ্চিন্তা মিটিয়ে দিবেন এবং অকল্পনীয় উৎস থেকে তার রিজিক এর ব্যবস্থা করে দেবেন। ( সুনানে আবু দাউদ, হাদিস ঃ ১৫১৮)

সংসারে অভাব দূর করার উপায়   

মহান আল্লাহ পাক আমাদের বিভিন্ন সময় নানা রকম অসুখ-বিসুখ, অভাব-অনটন ইত্যাদি দিয়ে তার বান্দাদের পরীক্ষা করে থাকেন। আমরা অনেক সময় সংসারে কঠিন অভাবের সম্মুখীন হই। কিন্তু এই অভাব দূর করার রয়েছে অনেক আমল। এবারে সংসারে অভাব দূর করার উপায় গুলো জানতে আপনি কি কি আমল করতে পারেন চলুন জেনে নিই। 

  • আল্লাহর উপর তার তাকওয়া অবলম্বন করা। অর্থাৎ আল্লাহর নির্দেশ পালন করা এবং নিষেধ গুলো বর্জন করা আল্লাহর উপর সর্বদা ভরসা রাখা।
  • বেশি বেশি তওবা বা ইস্তেগফার পাঠ করা এর মাধ্যমে গুনাহ মাফ হয় এবং বিপদ আপদ দারিদ্রতা দূর হয়।
  • দারিদ্রতা দূর করতে বেশি বেশি সূরা ওয়াকিয়া পাঠ করুন। রাসূল (সা) বলেছেন, যে ব্যক্তি প্রতি রাতে সূরা ওয়াকিয়া পাঠ করবে সে কখনো অভাব অনটনে পড়বে না।
  • আল্লাহর রাস্তায় বেশি বেশি দান সদকা করা। আমরা মনে করি বেশি দান করলে হয়তো সম্পদ ফুরিয়ে যাবে। কিন্তু বেশি বেশি দান সদকা করলে সম্পদ কমে না, বরং বাড়ে।
  • আত্মীয়দের সাথে সম্পর্ক বজায় রাখা।

সংসারে বরকতের দোয়া  

আল্লাহতালা আমাদের কষ্ট, অভাব দিয়ে আমাদের পরীক্ষা করে থাকেন।  কিভাবে কি হবে, তার উপায়ও আল্লাহ বলে দিয়েছেন তিনি। বেশ কিছু আমল রয়েছে যেগুলোর মাধ্যমে জীবনে বরকত আসে অল্পতে অনেক তৃপ্তি মেলে। যেমন অন্তরে আল্লাহর ভয় থাকা, আল্লাহর উপর পূর্ণাঙ্গ ভরসা রাখা, দান সদকা করা, হালাল পন্থায় আয় করা ইত্যাদি। 

আরো পড়ুনঃ ইসমে আজমের দোয়া-ইসমে আজম কিভাবে পড়তে হয়

বেশি বেশি দান সদকা মানুষের জীবনে বরকত নিয়ে আসে। আল্লাহ বলেন, হে আদম সন্তান তুমি খরচ কর, তোমার জন্য খরচ করা হবে অর্থাৎ প্রাচুর্য আসবে। (সহি বুখারী হাদিস ঃ ৫৩৫২)

উক্ত আমলের পাশাপাশি আপনি দোয়ার আমল ও করতে পারেন। আপনার সংসারে আল্লাহ বরকত দান করবেন ইনশাআল্লাহ। সংসারে বরকতের দোয়া

اللهم اكْفِنِي بِحَلَالِكَ عن حَرَامِكَ ، وَأَغْنِنِي بِفَضْلِكَ عَمَّنْ سِوَاكَ
উচ্চারণ : আল্লাহুম্মাকফিনি বি হালালিকা আন হারামিকা, ওয়া আগনিনি বিফাদলিকা আম্মান সিওয়াক।

অর্থ : হে আল্লাহ হারামের পরিবর্তে তোমার হালাল রুজি আমার জন্য যথেষ্ট কর। আর তোমাকে ছাড়া আমাকে কারো মুখাপেক্ষী করো না এবং নিজ অনুগ্রহ দ্বারা আমাকে সচ্ছলতা দান করো। (তিরমিজি হাদিস ৩৫৬৩; মুসনাদ আহমদ হাদিস ১৩২১)

সংসারে উন্নতি হওয়ার আমল  

সংসারে উন্নতি কে না চায়। আমরা সংসারে উন্নতি করার জন্য নানা ধরনের কাজ করে থাকে। আমাদের সমাজে এমন কিছু কিছু লোক বাস করে যারা সারাদিন কঠোর পরিশ্রম করেও সংসারে উন্নতি করতে পারে না। এর রয়েছে কিছু কিছু কারণ। দুঃখ কষ্ট, রোগ শোক, বিপদ-আপদ, অভাব অনটন এর মধ্যে ফেলে আল্লাহ আমাদের পরীক্ষা নিলেও উক্ত পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হতে আমাদেরকে ধৈর্য ধরার পাশাপাশি বিপদ কাটিয়ে ওঠার কিছু প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে হবে। এই সম্পর্কেও আমাদের দয়ার নবী শিক্ষা দিয়ে গেছেন। 

রাসূল (সা) এর যুগে অভাব অনটন দুর্ভিক্ষ বা খাদ্য সংকটের সময়ে তিনি সাহাবীদেরকে অনেক নির্দেশনা দিয়েছেন। যেমন অপচয় বা অপব্যয় নিষিদ্ধ করেছে ইসলাম। জীবনের প্রত্যেকটি ক্ষেত্রে মধ্যপন্থা অবলম্বন করার কথা বলেছেন। অভাব অনটনের সময় সংযত ব্যবহারের নির্দেশ দিয়েছে আমাদের নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম। 

  • গুনাহ ছেড়ে দেওয়ার তাগিদ - সংসারে উন্নতি হওয়ার আরেকটি আমল হচ্ছে গুনাহ ছেড়ে দেওয়া। এক হাদিসের ভাষ্যমতে বিভিন্ন কারণে খাদ্য সংকট এবং দুর্ভিক্ষের সৃষ্টি হয়। যেমন সুদ, ঘুষ, জেনা ব্যভিচার, ব্যবসা প্রতারণা ইত্যাদি। অর্থাৎ পাপাচারের শাস্তি হিসেবে আল্লাহ মানুষের ওপর বিভিন্ন রকমের বিপদ দিয়ে থাকেন। রাসুল (সা) বলেন, সৎকর্ম ছাড়া অন্য কিছু আয়ুষ্কাল বাড়াতে পারো না। এবং দোয়া ছাড়া অন্য কিছুতে ভাগ্য পরিবর্তন হয় না। মানুষ তার পাপের কারণে তার প্রাপ্য রিজিক থেকে বঞ্চিত হয়। (ইবনে মাজাহ ৪০২২)
  • বেশি বেশি দান সদকা করা - সংসারে উন্নতি হওয়ার আরেকটি আমল হচ্ছে বেশি বেশি দান করা। এতে সম্পদ কমে যায় না বরং বাড়ে। সংসার উন্নতি করার জন্য বেশি বেশি ধান ছদকা করুন। বিনিময়ে আল্লাহ আপনাকে সাহায্য করবে।
  • আল্লাহর উপর ভরসা রাখা - আমাদের যেকোন বিষয়ে আল্লাহর উপর ভরসা রাখা উচিত। এমন কি প্রতিটি কদমে কদমে। আল্লাহর প্রতি বিশ্বাস তার শাস্তির ভয় বিপদে ধৈর্য ধারণ করা এই বিষয়গুলো মানুষের রিজিক বৃদ্ধি করে দেয়।
  • দারিদ্রতা থেকে মুক্তির দোয়া - সংসারের উন্নতি করতে হলে আল্লাহর কাছে দোয়া করতে হবে।অভাব অনটনের সময় কোন দোয়াগুলো পাঠ করবেন এই আর্টিকেলটি তে বলে দিয়েছি। দারিদ্রতা থেকে মুক্তির দোয়া বেশি বেশি পাঠ করুন। আল্লাহ আপনার সংসারে উন্নতি দিবে ইনশাল্লাহ।

সংসারে অশান্তি দূর করার দোয়া   

আমরা অনেকেই সংসারে অশান্তি দূর করার দোয়া জানিনা। এবারে জানব সংসারে অশান্তি দূর করার দোয়া। চলুন দোয়া এবং আমলগুলো জেনে নিই।

হযরত আয়েশা রাদিয়াল্লাহু আনহু হতে বর্ণিত, রাসূল (সা) বলেন, যখন তোমাদের কেউ আহার করে সে যেন বলে

بِسْمِ الله বিসমিল্লাহ, অর্থাৎ আল্লাহর নামে

অতঃপর ডান হাত দিয়ে খাবার খাওয়া শুরু করতে হবে (বুখারী ও মুসলিম)। তারপর নিম্নের দোয়াটি পড়তে হবে

اَللَّهُمَّ بَارِكْ لَنَا فِيْهِ وَ اَطْعِمْنَا خَيْراً مِّنْهُ –

উচ্চারণ : আল্লাহুম্মা বা-রিক্ লানা- ফী-হি ওয়া আত্বইমনা খাইরাম্ মিনহু।
অর্থ : হে আল্লাহ, আমাদেরকে এতে বরকত দিয়ে, ভবিষ্যতে আরও উত্তম খাদ্য দিন (তিরমিজি, আবু দাউদ, মিশকাত)
সুরা বাকারা নিয়মিত তেলাওয়াত করা। রাসূল (সা) বলেন, সব কিছুরই চুড়া রয়েছে, তেমনি কুরআনের চূড়া হচ্ছে সূরা আল বাকারা। যখন শয়তান সূরা আল বাকারার তেলাওয়াত শুনে তখন ওই ঘর থেকে বের হয়ে যায়। 
সংসারে অশান্তি দূর করার আরেকটি আমল হচ্ছে অশ্লীল বিনোদন হতে ঘরকে রক্ষা করা। অর্থাৎ নিজ নিজ ঘর এবং পরিবার-পরিজনকে গান-বাজনা থেকে বিরত রাখা। গান-বাজনা করার সরঞ্জাম থেকে মুক্ত রাখা।
ঘরে কুকুরের প্রবেশ এবং ঘরে প্রাণীর ছবি থেকে হেফাজত করা। রাসূল সা বলেছেন, যে ঘরে ছবি এবং কুকুর থাকে সে ঘরে রহমতের ফেরেস্তা প্রবেশ করে না। ( বুখারী)
প্রিয় পাঠক আশা করছি আমাদের আজকের এই আর্টিকেল সংসারে অভাব দূর করার দোয়া ও সংসারে অভাব দূর করার উপায় আপনাদের ভালো লেগেছে। সংসারে অভাব দূর করার দোয়া আর্টিকেলটি যদি আপনাদের ভালো লেগে থাকে তাহলে অবশ্যই শেয়ার করবেন। সংসারে অভাব দূর করার দোয়া সম্পর্কে জানানোর চেষ্টা করেছি। আর্টিকেলটি আপনাদের উপকারে আসলে তবেই আমাদের কষ্ট সার্থক হবে বলে মনে করি। আজকের মত বিদায় নিচ্ছি। সবাই ভালো থাকবেন। আল্লাহ হাফেজ। ২৩২৬১

Next Post Previous Post
No Comment
Add Comment
comment url